২০ কোটি টাকা খাবারের বিলের খবর মিথ্যা

২০ কোটি টাকা খাবারের বিলের খবর মিথ্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক

শুধু ডাক্তারদের খাওয়া বাবদ নয় সাড়ে তিন হাজার চিকিৎসা কর্মীর হোটেল ভাড়া পরিবহন ভাড়া ও খাওয়া খরচসহ দুই মাসে মোট প্রায় ২০ কোটি টাকার চাহিদা দেওয়া হয়েছে। সুতরাং শুধু ২০০ ডাক্তারের খাওয়া বাবদ ২০ কোটি টাকা বিলের যে খবর প্রচার হচ্ছে তা মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।

বুধবার (১ জুলাই) এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন এ দাবি করেছেন।

করোনাভাইরাস চিকিৎসায় নিয়োজিত ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও কর্মীদের এক মাসের খাবারের বিল ২০ কোটি টাকা এসেছে বলে তথ্য পাওয়া যায়।

এ নিয়ে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে বিতর্ক থেকে শুরু করে গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলছে আলোচনা ও সমালোচনা। ঢামেক’র স্বাস্থ্যকর্মীদের এক মাসের খাবারের বিল ২০ কোটি টাকা কী করে হয়?

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সোমবার জাতীয় সংসদে এই খরচ নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন, ‘এক মাসে ২০ কোটি টাকা খাবারের বিল, এটি অস্বাভাবিকই মনে হচ্ছে৷ এটি আমরা পরীক্ষা করে দেখছি৷ এত অস্বাভাবিক কেন হবে? যদি কোনো অনিয়ম হয়, অবশ্যই আমরা ব্যবস্থা নেবো৷’

এরইমধ্যে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির ২০ কোটি টাকার পূর্ণাঙ্গ ব্যখ্যা দিলেন।


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here