মেয়রের দায়িত্ব নেওয়ার আগে আতিক বললেন, সাহায্য চাই সবার

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা
করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পাশাপাশি ডেঙ্গুর আশঙ্কার মধ্যে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়রের দায়িত্ব আবার নিতে যাচ্ছেন আতিকুল ইসলাম।

আইনি বাধ্যবাধকতার কারণে মেয়র পদ ছেড়ে এবারের নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন আতিক। ভোটে জিতে শপথ নিয়ে বুধবার তিনি ফের দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নতুন মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস আগামী শনিবার দায়িত্ব নেবেন।

গতবার ঢাকায় ডেঙ্গুর ভয়াবহতা নাকাল করেছিল মেয়র হিসেবে আতিককেও। এবার এখনই চলছে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব, সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ঢাকায়। সামনে ডেঙ্গুর প্রকোপও বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এর মধ্যেই পুনরায় মেয়রের চেয়ারে বসার আগে আতিক মঙ্গলবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, খুব কঠিন সময়ে যে তিনি দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন, তা বুঝতে পারছেন তিনি।

“এজন্য আমি সবার সাহায্য চাই। বিশেষ করে নতুন মহামারী কোভিড-১৯ যোগ হয়েছে। সুতরাং কঠিন সময়ে দায়িত্ব নিতে যাচ্ছি। কিন্তু সবাই মিলে যদি একসঙ্গে কাজ করি তাহলে এই মহামারীকে জয় করতে পারব ইনশাল্লাহ।”

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রথম মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুর ২০১৯ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারির উপনির্বাচনে মেয়র হন আতিক। তিনি মেয়র হওয়ার পরই রাজধানীতে ডেঙ্গুর প্রকোপ দেখা দেয়। মশার অত্যাচারে অতিষ্ঠ নগরবাসী দুই মেয়রকে কাঠগড়ায় দাঁড় করায়।

ডেঙ্গুর বাহক এইডিস মশা মারার ওষুধ অকার্যকর প্রমাণিত হলে ওষুধ পরিবর্তন করতে হয় ডিএনসিসিকে। ওষুধ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করে ডিএনসিসি।

মশা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতার জন্য উচ্চ আদালতও বিভিন্ন সময় উষ্মা প্রকাশ করেন। সে বছরই সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজছাত্র আবরার নিহত হলে নিরাপদ সড়ক আন্দোলন তুঙ্গে উঠে। আতিক মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার কিছুদিনের মধ্যেই বনানীর এফআর টাওয়ারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ঘটে।

এবারও মেয়রের চেয়ারে বসার আগে দেশজুড়ে করোনাভাইরাসের বিস্তার।

গত বারের অভিজ্ঞতায় ডেঙ্গু মোকাবেলাকে প্রাধান্য দিয়ে ইশতেহার সাজিয়েছিলেন আতিক; তবে এর মধ্যে যোগ হয়েছে কোভিড-১৯ এর চ্যালেঞ্জ।

আতিক বলেন, “এটা (কোভিড-১৯) নতুন যোগ হয়েছে। আমরা জানি না এটা কতদিন থাকবে। জানি না আমরা যে গতিতে এগোতে চাই, এর কারণে সে গতিতে চলতে পারব কি না? তারপরও সর্বাত্মক চেষ্টা করব নির্বাচনী ইশতেহার বাস্তবায়ন করার জন্য।”

ব্যবসায়ী থেকে রাজনীতিতে নামা আতিক বলেন, এর আগে মেয়র হিসেবে ৯ মাস দায়িত্ব পালনের অভিজ্ঞতা কাজে লাগবে তার। সড়ক বাতি স্থাপনের মাধ্যমে রাজধানী আলোকিত করা, নতুন যুক্ত হওয়া এলাকাগুলোর উন্নয়ন, জলাবদ্ধতা দূর করার জন্য মহাপরিকল্পনা নিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, উত্তরার বিভিন্ন এলাকায় উন্নয়নকাজ শুরু করেছেন। খেলার মাঠ, পার্কগুলো উন্নয়নের কাজও কিছুটা এগিয়ে আছে।

“এ কারণে মনে করি আমি কাজ কিছুটা এগিয়ে রেখেছি। চ্যালেঞ্জ আছে, কিন্তু এটাকে মোকাবেলা করেই এগোতে হবে। আমি সব সময় চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করেই এসেছি।”

গত ২৭ ফেব্রুয়ারি মেয়র হিসেবে দ্বিতীয় বারের মতো শপথ নেন আতিক। একই দিন ঢাকা দক্ষিণের মেয়র হিসেবে শপথ নেন শেখ ফজলে নূর তাপস।

তাপসের ব্যক্তিগত সহকারী তারেক শিকদার বলেন, “দক্ষিণ সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ ১৬ তারিখে দায়িত্ব গ্রহণের জন্য একটি চিঠি নতুন মেয়র মহোদয়কে দিয়েছেন। সেই হিসেবে আগামী ১৬ মে দুপুরে তিনি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের দায়িত্ব গ্রহণ করবেন।”


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply