‘বিশেষ টিম’ খোঁজ নিবে করোনায় অসুস্থ পুলিশ সদস্যদের


নিজস্ব প্রতিবেদক
ঢাকা
চলমান করোনাযুদ্ধে মানুষের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে জীবনবাজি রেখে লড়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ পুলিশ। করোনাকালে জনগণের সুরক্ষা নি‌শ্চিত করতে গিয়ে এরইমধ্যে ছয়জন দেশপ্রেমিক পুলিশ সদস্য আত্মোৎসর্গ করেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় দেড় হাজার পুলিশ সদস্য।
বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদের নির্দেশে‌ আক্রান্ত পু‌লিশ সদস্যদের সু‌চি‌কিৎসা ও কল্যা‌ণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। চাহিদার সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাড়ানো হচ্ছে চিকিৎসা ও সেবার আয়োজন।

এরই ধারাবা‌হিকতায় আইজিপির নির্দেশে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে করোনা আক্রান্ত প্রত্যেক সদস্যকে স্ব-শরীরে পরিদর্শনের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে ‘বিশেষ টিম’ গঠন করছে পু‌লিশের বি‌ভিন্ন ইউ‌নিট। প্রাথমিকভাবে এই বিশেষ টিমগুলো করোনা আক্রান্ত প্রত্যেক সদস্যকে সরেজমিনে পরিদর্শন করবে, তাদের চিকিৎসার ব্যাপারে খোঁজ-খবর নেবে, হাসপাতাল কিংবা আইসোলেশনে থাকাকালীন তাদের বিভিন্ন সমস্যার কথা জেনে তাৎক্ষণিকভাবে সমাধানের উদ্যোগ নেবে এবং পদমর্যাদা নির্বিশেষে প্রত্যেক সদস্য যেন চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী প্রয়োজনীয় চিকিৎসা পান- সে ব্যাপারটি নিশ্চিত করতে উদ্যোগ নেবে।
এরইমধ্যেই ডিএম‌পি ক‌মিশনা‌রের তত্ত্বাবধানে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের একটি বিশেষ টিম ৮ মে শুক্রবার কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতাল, রাজারবাগ এবং করোনা চিকিৎসার জন্য কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালের বর্ধিতাংশ ডিএমপির ট্রাফিক ব্যারাক, রাজারবাগে বাংলাদেশ পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের চিকিৎসাধীন পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে স্ব-শরী‌রে পরিদর্শন করেছে। এ সময় করোনা আক্রান্ত পুলিশ সদস্যরা বিশেষ টিমকে সামনে পেয়ে উজ্জীবিত হন এবং তাদের বিভিন্ন সমস্যার কথা জানান। বিশেষ টিমটি সমস্যার কথা জেনে তাৎক্ষণিকভাবে সমাধানে উদ্যোগ নেয়।
উল্লেখ্য, এ যাবৎ করোনা আক্রান্ত মোট ৯৮ জন পুলিশ সদস্য সুস্থ হয়েছেন। বাংলাদেশ পুলিশের আইজিপি’র নির্দেশে করোনা আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের সুচিকিৎসা নিশ্চিতকল্পে কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বেসরকারি ইমপালস হাসপাতালে আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসার জন্য বন্দোবস্ত করা হয়েছে। ছয়টি বিভাগীয় শহরে হাসপাতাল ভাড়া করে সেখানেও প্রয়োজনীয় সব সুবিধা যুক্ত করা হচ্ছে।
আক্রান্ত সদস্যদের সার্বিক কল্যাণ নিশ্চিত করতে কঠোর নির্দেশনা দিয়েছেন আইজিপি। পাশাপাশি তিনি ব্যক্তিগতভাবে ইউনিট কমান্ডারদের সঙ্গে কথা বলে প্রতিনিয়ত খোঁজ-খবর নিচ্ছেন ও প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দিচ্ছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here