এই মুহুর্তে পাওয়া..
Home / Slide News / শাকিল চলে গেলো কেন, আমি ইলিশ পোলাও রাধঁলামঃ শেখ হাসিনা

শাকিল চলে গেলো কেন, আমি ইলিশ পোলাও রাধঁলামঃ শেখ হাসিনা

মুন্নি সাহা,এটিএন নিউজ

ostad-cover
১৭ জানুয়ারি২০১৬. গনভবন। দুপুর।গল্প করছিলাম রেহানা আপার সাথে। হঠাৎ শাকিলভাই ঢুকলেন, কয়েকটা কাগজ রেখে চলে যাচ্ছিলেন। ছোটআপা পেছন থেকে ডাকলেন– জিজ্ঞেস করলেন আমার সাথে পরিচয় আছে কিনা। শাকিলভাই হ্যা – না কিছু না বলে, আমার দিকে তাকিয়ে বললেন— কি রে কেমন আছিস, কখন আসছিস?
শাকিল ভাই চলে যেতে না যেতেই রান্নাঘর থেকে অনেকটা দৌড়ে বেড়িয়ে এলেন আমাদের প্রধানমন্ত্রী। সাংবাদিকতার সুবাদে, দীর্ঘদিন পলিটিক্যাল বীট্ কাভার করার সুবাদে যিনি ঘরোয়া পরিবেশে আমাদের আপা। আর স্নেহ- মমতায় পরিপুষ্ট এই মানুষটি, যিনি নিজগুনে কাউকে কাউকে নিজের সন্তানের মত কাছের করে নেন। শাকিলভাই হয়তো সেই blessed দের একজন। তাই রান্নাঘর থেকে হাত মুছতে মুছতে, বলতে বলতে এলেন— “শাকিল চলে গেলো, চলে গেলো কেন, আমি ইলিশ পোলাও রাধঁলাম”। তারপর আমাদের প্রধানমন্ত্রী, অথবা একজন মা বা বড়বোন– ফোনে, তার সহকমী বা ভাই বা সন্তানতুল্য কাউকে নিজ হাতে রাধাঁ ইলিশ পোলাও খাওয়ানোর জন্য আদরমাখা মিনতি করছেন… সে এক অপূর্ব দৃশ্য, অদ্ভুত কনভার্সেশন। তিন হাত দূরে বসে আমি পুরো বিষয়ের স্বাক্ষী। ফোনটা ছেড়ে দিয়ে এককটু মনখারাপ সামলে নিলেন মাননীয় প্রধান মন্ত্রী। রেহানা আপা আর আমার দিকে তাকিয়ে বললেন, “নাহ ও একটু দূরে চলে গেছে, আসো তোমাদের দুজনের কপালেই আছে, গরম গরম খাও”!
তাঁর আন্তরিকতা, সারল্য, ভালবাসা আর স্বাভাবিক খুনসুটিঁ তে মুগ্ধ আমি শাকিল ভাই কে ফোন করলাম, গনভবন থেকে বেড়িয়েই। ২/১ লাইন বলতেই.. শাকিলের কান্না! আহারে, আমার বস্, আমার আপা, বঙ্গবন্ধুর কন্যা…
পরেরদিন সকালে একগল্প ভাঙ্গা রেকর্ডের মত শোনাতে হলো অনেকবার। যতবার থেমেছি, দারি দিয়েছি, শাকিল বলেছে… we are blessed… !
তুমি ভালবাসা পেয়েছো শাকিলভাই, you are blessed! আমি তোমার আবদার রাখলাম, কিন্তু its too much.. is that a viable die able time?? RIP

Print Friendly

উপদেষ্টা সম্পাদক : আরিফ নেওয়াজ ফরাজী বাদল

সম্পাদক : হাবিবুল্লাহ মিজান

মোবাইল : ০১৫৩৪৬০৪৪৭৬, ই-মেইল : mizandeshi@gmail.com