Home / খেলাধুলা / মেলবোর্নে সিরিজ বাঁচাতে পারবেন ধোনি?

মেলবোর্নে সিরিজ বাঁচাতে পারবেন ধোনি?

23‘দেশের মাটিতে বাঘ, দেশের বাইরে বিড়াল।’একসময় ভারতীয় দলের সঙ্গে কথাটি খুব যেত! বাংলার মহারাজা সৌরভ গাঙ্গুলী ভারতীয় ক্রিকেটে হাল ধরার পর ঘুচে যায় সেই অপবাদ। ভারতীয়রা জেতা শুরু করে দেশের বাইরেও। এই তো কিছুদিন আগে ঘরের মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকাকে এমন নাস্তানাবুদ করে দিল বিরাট কোহলির দল, যে ক্ষত এখনও বয়ে বেড়াচ্ছে তারা! অস্ট্রেলিয়া সফরে গিয়েও টগবগ করে ফুটছিল ভারতীয়রা। বিশেষ করে ব্যাটসম্যানরা তাদের কাজ ঠিকঠাক করে গেলেও বোলারদের হতদ্যম পারফরম্যান্সে পরপর দুই ম্যাচে ৩০০ প্লাস রান করেও হারতে হয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির দলকে।

পাঁচ ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডে হতে যাচ্ছে রোববার বাংলাদেশ সময় সকাল ৯.২০ মিনিটে। হারলেই সিরিজের দখল নিয়ে নেবে স্টিভেন স্মিথের দল। তাহলে সিরিজ বাঁচাতে কী কৌশল নেবেন ধোনি? ৩০০ প্লাস করেও তো পার পাওয়া যাচ্ছে না অস্ট্রেলিয়ার কাছে! তাহলে কী টস জিতে রান তাড়া করাটাই নিরাপদ নাকি আগে ব্যাট করে ৩৩০ প্লাস রান ছুঁরে দেওয়ার চ্যালেঞ্জ নেবেন ভারত অধিনায়ক? পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ২-০তে পিছিয়ে রয়েছে ভারত।

বিশাল বড় দেশ হওয়া সত্ত্বেও ভারতীয় দল বোলিং নিয়ে কখনোই স্বস্তিতে ছিল না। তারা একের পর এক ব্যাটসম্যানই জন্ম দিয়ে গেছে, বোলার নয়। এক সময় ফাস্ট বোলার বলতে ছিলেন সবেধন নীলমনি জাভাগাল শ্রীনাথ। তার প্রস্থানের পর দীর্ঘদিন ধরেই ঝান্ডাটা বয়ে বেড়িয়েছেন জহির খান। তারপর কত বোলার এলো গেলো জহির হওয়া আর কারও হলো না।

পরপর দুই ম্যাচ বড় স্কোর করেও স্রেফ বোলারদের জন্য হেরে গেছে ভারত। বেচারা রোহিত শর্মা কী কষ্টটাই না পাচ্ছেন ওরকম দুটি মর্যাদাপূর্ণ সেঞ্চুরি করার পরও। রোহিতকে না আবার লোকে বলাবলি শুরু করে, ‘ও সেঞ্চুরি করলে ভারত ম্যাচ জেতে না!’। তবে ধোনি যে বোলারদের উপর ক্ষুব্ধ সেটা রাখঢাক না রেখে বলেও দিয়েছেন, ‘এই বোলিংয়ের জন্য তিন’শ রানও যথেষ্ট নয়। আমার তো মনে হচ্ছে, প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানদের উপর চাপ সৃষ্টি করতে আমাদের আরও রান করতে হবে। পরপর দুই ম্যাচে ৩০০ করা অবশ্যই ভালো। কিন্তু আমাদের বোলারদের যা অবস্থা দেখছি তাতে ৩৩০ বা তারও বেশি রান দরকার আমাদের।’

ধোনির ক্ষুব্ধ হওয়ারই কথা। দেখুন ভারতীয় বোলারদের রান দেওয়ার ধরণ-উমেশ যাদব ১০ ওভারে ৭৪, ইশান্ত শর্মা ১০ ওভারে ৬০,  রবিচন্দ্র অশ্বিন ১০ ওভারে ৬০, রবিন্দ্র জাদেজা ৯ ওভারে ৫০, ভারতের ‘মুস্তাফিজ’ স্রান ৯ ওভারে দিয়েছেন ৫১ রান।

দুই ইনিংসে সাকুল্যে ২৯ রান করেছেন ধোনি। উইকেটের পেছনে বিশ্বস্ত দস্তানাও ঠিকঠাক কাজ করছে না। উপরুন্ত ৩০০ প্লাস রান করার পরও  দল হারছে। স্বাভাবিকভাবেই চারদিক থেকে ধোনির দিকে ধেয়ে আসছে সমালোচনা। মেলবোর্নে তৃতীয় ওয়ানডেটা জিততে না পারলে নিন্দুকেরা ক্যাপ্টেন কুলকে যে ছেড়ে কথা বলবে না সেটা বলাই যায়। অসংখ্যবার চাপকে জয় করা ধোনি কী পারবেন অস্ট্রেলিয়ায় নিজে এবং একই সঙ্গে দলকে উদ্ধার করতে? ভারতীয় দলে পরিবর্তন না আসার সম্ভাবনাই বেশি। পরিবর্তন হলে উমেশ যাদবের জায়গায় ঢুকতে পারেন ভুবনেশ্বর কুমার।

পরিসংখ্যান জানাচ্ছে, অস্ট্রেলিয়া ঘরের মাঠে সর্বশেষ ওয়ানডে হেরেছে ২০১৪ সালের নভেম্বরে। এরপর থেকে তারা টানা ঘরের মাঠে জিতেছে ১৭টি ওয়ানডে। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে রোহিতের ১২৪ রানের ইনিংসটি ওপেনিংয়ে নেমে সেঞ্চুরি করার দিক দিয়ে সবচেয়ে ছোট। ওপেনিংয়ে নেমে তার বাকি সাত সেঞ্চুরির সবগুলোই ১৩৭ এর উপরে। আর ভারত তৃতীয় দল হিসেবে পরপর দুই ম্যাচে ৩০০ প্লাস রান করেও হেরেছে।

ভারত (সম্ভাব্য): শিখর ধাওয়ান, রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি, মনিশ পান্ডে, আজিঙ্কা রাহানে, মহেন্দ্র সিং ধোনি (অধিনায়ক), রবিন্দ্র  জাদেজা, রবিচন্দ্র অশ্বিন, ইশান্ত শর্মা, উমেশ যাদব/ভুবনেশ্বর কুমার, বারিন্দ্রর স্রান।

অস্ট্রেলিয়া (সম্ভাব্য): অ্যারন ফিঞ্চ, শন মার্শ, স্টিভেন স্মিথ (অধিনায়ক), জর্জ বেইলি, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মিচেল মার্শ, ম্যাথু ওয়েড, জেমস ফকনার, জন হেস্টিংস, স্কট বোলান্ড, জোয়েল প্যারিস।

Print Friendly

উপদেষ্টা সম্পাদক : আরিফ নেওয়াজ ফরাজী বাদল

সম্পাদক : হাবিবুল্লাহ মিজান

মোবাইল : ০১৫৩৪৬০৪৪৭৬, ই-মেইল : mizandeshi@gmail.com