এই মুহুর্তে পাওয়া..
Home / জাতীয় / ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনঃ নানা অনিয়ম

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনঃ নানা অনিয়ম

অল ক্রাইমস টিভিঃ চতুর্থ ধাপের ৭০৩ ইউনিয়ন পরিষদের ভোট শুরু হয়েছে। সহিংসতা ও কেন্দ্র দখলের পাশাপাশি নানা অনিয়মের অভিযোগ।
১। সহিংসতার আশঙ্কায় দুই দিনে ১৮টি ইউনিয়নের ভোটাভুটি স্থগিত করা হয়।
২। কমিশন সচিবালয়ের তথ্য অনুযায়ী, এই ধাপের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীর সংখ্যা প্রায় তিন হাজার ২০০। তাঁদের মধ্যে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হওয়ার পথে রয়েছেন ৩৩ জন। তাঁরা সবাই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ–মনোনীত। ৮৬টিতে চেয়ারম্যান পদে বিএনপির কোনো প্রার্থী নেই।
৩। ইউপি নির্বাচনকেন্দ্রিক সংঘাত-সংঘর্ষে এ পর্যন্ত যে ৫৯ জন মানুষ মারা গেছেন, হিসাব নিলে দেখা যাবে এঁদের অধিকাংশ আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী ও সমর্থক। আর সংঘর্ষের ৯০ শতাংশ ঘটেছে আওয়ামী লীগ বনাম আওয়ামী লীগ। ‘মনোনীত’ বনাম ‘বিদ্রোহী’।

কুষ্টিয়ায় সিলমারা ১৩২৮ ব্যালট পেপার উদ্ধারঃ
চতুর্থ পর্যায়ের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের আগের দিন কুষ্টিয়া সদরে একটি ভোটকেন্দ্রে সিল মারা একহাজার ৩২৮টি ব্যালট পেপার উদ্ধার করা হয়েছে।

কুষ্টিয়া জেলা নির্বাচন অফিসার নওয়াবুল ইসলাম জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় আব্দালপুর ইউনিয়নের পশ্চিম আব্দালপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় ২ নম্বর কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

তিনি বলেন, “আগাম সিল মারার অপরাধে রিটার্নিং অফিসার সুখেন কুমার পাল ওই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার আশরাফ উদ্দিনকে প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।”

আশরাফ উদ্দিন কুষ্টিয়া ইসলামিয়া কলেজের শিক্ষক।

চুয়াডাঙ্গায় ভোট কর্মকর্তা প্রত্যাহারঃ
ভোটকেন্দ্রে নিয়ম ভেঙে এক যুবককে ঢুকতে দেওয়ায় চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার হারদি ইউনিয়নের একটি কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

এই ভোট কর্মকর্তার নাম এ বি এম মমিনুর রশীদ খান। তিনি শেখপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তার দায়িত্বে ছিলেন।

মমিনুর আলমডাঙ্গা উপজেলার মোড়ভাঙ্গা গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে। তিনি শেখপাড়া গ্রামের মনিরুল ইসলাম নামে এক যুবককে কেন্দ্রে ঢুকতে দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার সকালে ভোটগ্রহণের আগে শুক্রবার রাতে মনিরুল নামে ওই যুবককে আটক করা হয় বলে চুয়াডাঙ্গার জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার মো. ছুফী উল্লাহ সাংবাদিকদের জানান।

তিনি বলেন, “শেখপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তার সহযোগিতায় ওই যুবক ভেতরে ঢুকেছিলেন। উপযুক্ত প্রমাণের ভিত্তিতে সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার এবং বহিরাগতকে আটক করা হয়।”

পার্বতীপুরে এক কেন্দ্রে ভোট স্থগিতঃ
ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনা ঘটায় দিনাজপুরের পার্বতীপুরের একটি ইউনিয়নে এক কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ স্থগিত হয়ে গেছে।

পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার তরফদার মাহমুদুর রহমান জানান, শনিবার সকালে উপজেলার বেলাইচণ্ডি ইউনিয়নের কৈপুলকি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ বন্ধ করা হয়।

ওই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তা তৌহিজ উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, “সকালে ভোট শুরুর ১৫ মিনিট পর আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী নুর মোহাম্মদ রাজা ৩০/৩৫ জন লোক নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করে তার কাছ থেকে ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নিয়ে সিল মারতে থাকে।”

এরপর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার নির্দেশে ওই কেন্দ্রের ভোট পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয় বলে জানান তিনি।

জামালপুরে দুই ভোট কর্মকর্তা আটকঃ
আগেই সিল মারা ব্যালট পেপার নিয়ে কেন্দ্রে ঢোকায় জামালপুরের বকশীগঞ্জের একটি ইউনিয়নের দুটি ভোটকেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরুর সময় তাদের আটকের পর ওই কেন্দ্র দুটিতে ভোটগ্রহণও স্থগিত করা হয়েছে বলে বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুব্রত পাল সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।

আটক দুই প্রিজাইডিং কর্মকর্তা হলেন সাধুরপাড়া ইউনিয়নের নজরুল ইসলাম উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের মো. আনিছুজ্জামান এবং আচ্চাকান্দি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের মো. আক্রামুজ্জামান।

রাতেই ব্যালটে সিল, কুমিল্লায় প্রিজাইডিং কর্মকর্তা গ্রেপ্তারঃ
রাতেই ব্যালটে সিল মারার অভিযোগে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলায় এক কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ও সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তাসহ চার জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার উপজেলার মুন্সিরহাট ইউনিয়নের জুগিরহাট হোসাই হাফেজিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে এ ঘটনার পর ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে বলে জানান জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা রাশেদুল ইসলাম।

গ্রেপ্তার প্রিজাইডিং কর্মকর্তার নাম মোবারক হোসেন বলে জানালেও অন্যদের নাম জানাতে পারেননি তিনি।

নির্বাচন কর্মকর্তা বলেন, রাতে ওই কেন্দ্রে ব্যালটে সিল মেরে বাক্স ভরার খবর পাওয়া যায়। পরে সকালে প্রিজাইডিং ও সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা এবং দুই দুর্বৃত্তকে গ্রেপ্তার করা হয়।

রায়পুরে ভোট স্থগিত, ৬ পোলিং এজেন্ট আটকঃ
লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার তেরোয়া ইউনিয়নে একটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। ব্যালট পেপারে নৌকা প্রতীকে সিল মারার অভিযোগে আটক করা হয়েছে ছয় পোলিং এজেন্টকে।

আজ শনিবার দুপুর ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আটক ছয় পোলিং এজেন্ট হলেন, মো. সেলিম, সিরাজ মিয়া, জাহাঙ্গীর আলম, মো. মাসুম, মানিক হোসেন ও বোরহানউদ্দিন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শারমিন আলমের ভাষ্য, মানসুরা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যানপ্রার্থী শাহজাহান কামালের পোলিং এজেন্টরা ব্যালট পেপারে নৌকা প্রতীকে সিল মারছিলেন। এ কারণে তাঁদের আটক করে ওই কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে।

Print Friendly

উপদেষ্টা সম্পাদক : আরিফ নেওয়াজ ফরাজী বাদল

সম্পাদক : হাবিবুল্লাহ মিজান

মোবাইল : ০১৫৩৪৬০৪৪৭৬, ই-মেইল : mizandeshi@gmail.com