এই মুহুর্তে পাওয়া..
Home / সম্পাদকের নির্বাচিত / আবারো অনুদান পাঠালো দুই বাংলাদেশি

আবারো অনুদান পাঠালো দুই বাংলাদেশি

স্টাফ রিপোর্টার, অল ক্রাইমস টিভি, ঢাকাঃ ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) শেখ নাজমুল আলম , সাদিয়া কর্পোরেশনের কর্ণধার সাজেদুল হক এবং ফ্রান্সের প্যারিসে বসাবসরত বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী ইঞ্জিনিয়ার কল্যাণ মিত্র বড়ুয়ার পরে আজ সকালে মানিকগঞ্জ জেলার সাটুরিয়া উপজেলার সাটুরিয়া ইউনিয়নের বাছট বৈলতলা মুকদমপাড়া হাফেজিয়া মাদরাসার ও এতিমখানার প্রতিষ্ঠাতা অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক আলহাজ একে এম ফজলুল হকের ছেলে হাবিবুল্লাহ মিজানের কাছে আর্থিক অনুদান পাঠালেন ফ্রান্স এবং দক্ষিন আফ্রিকা থেকে আরো দুই বাংলাদেশি।

ডানের ছবি  ফ্রান্সে বসবাসরত ফিদা হোসেন মুকবুল এবং দক্ষিন আফ্রিকা বসবাসরতপ্রিন্সিপ্যাল আশরাফুল করিম

ডানের ছবি ফ্রান্সে বসবাসরত ফিদা হোসেন মুকবুল এবং দক্ষিন আফ্রিকা বসবাসরতপ্রিন্সিপ্যাল আশরাফুল করিম

আজ মাদ্রাসার ফেসবুকে অনুদান গ্রহীতা এই বিষয়ে একটি পোস্ট দিলে এই অনুদানের কথা জানা যায়।
হাবিবুল্লাহ মিজান অল ক্রাইমস টিভিকে জানায়,আজ সকালে দক্ষিন আফ্রিকা থেকে বাংলাদেশি প্রবাসী প্রিন্সিপ্যাল আশরাফুল করিম নোয়াখালীতে বাস করা তাঁর ভাগ্নে জামশেদের মাধ্যমে ০১৮৫৫৯০৯০৯৬ বিকাশ নাম্বার থেকে মোট ৫,০০০/-(পাঁচ হাজার) টাকা পাঠিয়েছেন তাঁর ০১৯৮৭৯৩৯৭৩৬ বিকাশ নাম্বারে,যাহার ট্রান্সজেকশন আইডি নাম্বারঃ ৪৯৮৬৩৪৫৬৪১, সময় সকাল ১১ টা ৩৬ মিনিট।
তাঁর মতে বিকাশে মাধ্যমে গ্রহণ করা এটাই প্রথম অনুদান।
দক্ষিন আফ্রিকা থেকে বাংলাদেশি প্রবাসী প্রিন্সিপ্যাল আশরাফুল করিমের অনুদান

দক্ষিন আফ্রিকা থেকে বাংলাদেশি প্রবাসী প্রিন্সিপ্যাল আশরাফুল করিমের অনুদান

‘এই পোস্ট লিখতে লিখতেই ফ্রান্সে চাকুরীরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়য়ের সাবেক ছাত্র ফিদা হোসেন মুকবুল বাংলাদেশে থাকা তাঁরই বন্ধু রিপনের মাধমে ৩,০০০/- টাকা অনুদান পাঠিয়েছেন বলে তিনি ফেসবুকে জানিয়েছেন।

‘আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থায় চাকুরিরত মুকবুলের পক্ষে রিপন নামে বেসরকারী চাকুরীজীবী ০১৭৮০৩৫৬৮৬৬ নাম্বার বিকাশ একাউন্ট থেকে মোট ৩,০০০/-(তিন হাজার) টাকা পাঠিয়েছেন হাবিবুল্লাহ মিজানের ০১৯৮৭৯৩৯৭৩৬ নাম্বার বিকাশ একাউন্টে,যাহার ট্রান্সজেকশন আইডি নাম্বারঃ ৪৯৮৭১৪২৩৪৭, সময় দুপুর ১১ টা ৪০ মিনিট’ তিনি আরো জানান।

ফ্রান্সে চাকুরীরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়য়ের সাবেক ছাত্র ফিদা হোসেন মুকবুলের পাঠানো অনুদান

ফ্রান্সে চাকুরীরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়য়ের সাবেক ছাত্র ফিদা হোসেন মুকবুলের পাঠানো অনুদান

বাছট বৈলতলা মুকদমপাড়া হাফেজিয়া মাদরাসার ও এতিমখানার জন্য অনুদান গ্রহণের দলিল প্রকাশ করে মাদ্রাসাটির প্রতিষ্ঠাতা অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক আলহাজ একে এম ফজলুল হকের পক্ষে হাবিবুল্লাহ মিজান বলেন,‘সব কিছুতে ১০০ ভাগ স্বচ্ছতা থাকা খুব দরকার,বিশেষ করে মসজিদ-মাদ্রাসার অনুদানের ক্ষেত্রে। আর তাই সব অনুদানের হিসাব এখানেও প্রকাশ করা হচ্ছে।’
তিনি তাঁর কাছে জমা মোট অনুদানের সম্পর্কে বলেন, বর্তমানে মোট জমা আছে ৮,১০০/- (আট হাজার একশত) টাকা। মাদ্রাসার ছাত্রদের পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের জন্য নির্মাণাধীন মসজিদের কাজে এই টাকাসহ আরো অনেক টাকা লাগবে। মাদ্রাসাটিকে অসাম্রদায়িক উল্লেখ করে তিনি বলেন,‘যে কোন ধর্মাবলম্বীরা চাইলে আমাদের সাথে অংশগ্রহণ করতে পারেন।’
এ মাসের অনুদানের বিস্তারিত হিসাব মাস শেষে জানানো হবে বলেও জানিয়েছেন।

এদিকে মাদরাসার সার্বিক উন্নয়নে সবাইকে সাহায্য করার আহ্বান জানিয়ে হাফেজ মাওলানা জয়নাল আবেদিন বলেন, এখানে পবিত্র কোরআন মুখস্থ করানোর সঙ্গে সব শিশুদের বাংলা, ইংরেজি এবং বিজ্ঞান শিক্ষা দেয়া হচ্ছে। সব ছাত্রই মাদরাসার আশে-পাশের গ্রামের। শিশুর তিন বেলার খাবারের জন্য কেউ একটি ‘লিল্লা বোর্ডিং’ পরিচালনার খরচ বহন করতেন তাহলে খুব উপকার হতো।

গত ২৩ জানুয়ারি ফেসবুকে পোস্ট দেখে মাদরাসার সব শিশুদের জন্য শেখ নাজমুল আলম শীতের কম্বল পাঠিয়েছিলেন বলে জানান মাদরাসার মোহতামিম হাফেজ মাওলানা জয়নাল আবেদিন।

এরপরেই সাদিয়া কর্পোরেশনের কর্ণধার সাজেদুল হক এবং তাঁর স্ত্রী মানিকগঞ্জের শিবালয় থানার আলোকদিয়া সরকারি প্রাথমিক স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকা সুরাইয়া সিদ্দিকা মাদ্রাসার সব শিশুদের জন্য তোষক কিনে পাঠিয়ে দেন।

শুধু তাই না,গত ৭ ই জুন ফ্রান্সের প্যারিসে বসাবসরত বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী ইঞ্জিনিয়ার কল্যাণ মিত্র বড়ুয়া নামের এক বাংলাদেশির শিশু কন্যারা তাদের স্কুলের টিফিনের টাকা বাচিয়ে মাদরাসার মুসলিম শিশুদের ঈদে নতুন জুতো কেনার জন্য টাকা পাঠিয়েছিলেন বলে জানা গেছে।

Print Friendly

উপদেষ্টা সম্পাদক : আরিফ নেওয়াজ ফরাজী বাদল

সম্পাদক : হাবিবুল্লাহ মিজান

মোবাইল : ০১৫৩৪৬০৪৪৭৬, ই-মেইল : mizandeshi@gmail.com